ব্রণের দাগ দূর করতে আমার পছন্দের একটি জাদুকরী ফেসপ্যাক

ব্রণের দাগ দূর করতে আমরা কত রকমের প্রোডাক্ট ব্যবহার করি বেশ কিছুদিন আগের কথা। ব্যস্ততার কারণে স্কিনের ভাল মত কে আর নেয়া হচ্ছিল না। আয়নার দিকে একদিন হঠাৎ তাকালেই মনে হল কত জোক আমি আয়না দেখি না। আর মুখের স্কিনের দিকে খেয়াল করতে দেখলাম যে প্রচুর ব্রণ উঠে গেছে। এমন আমার মাঝে মাঝেই হয় কিন্তু কেয়ার করতে ভুলে গেলেও বা করা না হলে মুখে ব্রণ উঠে। কি করে আগের অবস্থায় ফেরত যাওয়া যায় সেটা ভাবছিলাম এদিকে আমার সাধের মুলতানি মাটির কোথাও খুঁজে পাচ্ছিলাম না। যে হোমমেইড ফেইস প্যাক বানিয়ে লাগাবো। পরে ভাবলাম দূর লাগাবে না মুলতানি মাটি। অন্য সব ইন গ্রীন এন্ড দিয়ে প্যাক বানিয়ে ফেলবো।

জে ভাবা শেই কাজ। প্যাক বানিয়ে লাগিয়ে ফেললাম। পরদিন সকালে উঠে মুখে ধুয়ে স্কিনে বেশ পরিবর্তন দেখলাম। ব্রণ গুলি শুকিয়ে আসছে দেখে তো আমি খুব খুশি সপ্তাহে তিন দিন এই প্যাক টি লাগালে স্কিন আবার আগের মত হয়ে যাবে।

আচ্ছা অনেকে তো আমার স্টরি বললাম এবার চলুন আপনাদের সাথেও শেয়ার করি ফেসপ্যাকটি কিভাবে বানাবেন এবং ব্যবহার করবেন।

ব্রণের দাগ দূর করতে ফেস প্যাক

১) হলুদের গুঁড়ো

হলুদে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি প্রপার্টিস প্রবলেম, বিশেষ করে ব্রণ দূর করতে বেশ ভালো কাজ করে।

তবে ফেসপ্যাক বানানোর জন্য রান্না ঘরে গিয়ে হলুদের কোটা থেকে হলুদ গুঁড়ো নিয়ে আবার ব্যবহার করতে যাবেন না। সব সময় হলুদ কেনার পর স্কিন কেয়ার এর জন্য ছোট একটি আলাদা কোটায় হলুদ গুঁড়ো রাখবেন।

২) মধু

মধুকে ন্যাচারাল ব্লিচিং এজেন্ট বলা হয় এবং এটি স্কিনের পিগমেন্টেশন লাইট করতে সাহায্য করে এছাড়াও এটি আমাদের স্কিনের মশ্চারাইজার করে।

৩) এলোভেরা জেল

এলোভেরা জেল স্কিনে হাই রেট মশ্চারাইজার করে স্কিনের একটা শুটিং ফিল দেয় এছাড়াও এটি ব্রণ দূর করতে বেশ কাজ দেয় তবে কোন ইন গ্রেট এ এলার্জি থাকলে ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করবেন না।

ব্রণের দাগ দূর করতে ফেস প্যাক কিভাবে বানাবেন

১) প্রথমে একটি ক্লিন বাটি নিয়ে এর মধ্যে ১ চা চামচ মধু এক চিমটি একটু বেশি হলুদের গুঁড়ো দুই বা চার চামচ এলোভেরা জেল নিয়ে ভালোভাবে সবকিছু মিশিয়ে নিন। আপনার প্যাকটি রেডি।

২) মুখ প্রথমে ফেসওয়াশ দিয়ে ক্লিন করে নিয়ে আমি একটা স্কাপ ব্যবহার করি। এরপর মুখ ধুয়ে স্কিন তাকে তাহলে সাহায্যে পেট ড্রাইভ করে নিয়ে একটি ব্রাশ আঙুলের সাহায্যে একটি পুরো মুখে লাগিয়ে নেই। 15 মিনিট অপেক্ষা করে নিয়ে মুখ পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলি। মার্কেটে এভেলেবেল এলোভেরা জেল পুরো মুখে লাগিয়ে নেই মশ্চারাইজার হিসেবে।

৩) এই ফেসপ্যাকটি সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন এবং এই প্যাকটি অবশ্যই রাতের বেলা ব্যবহার করবেন।

এইতো ছিল আজকের পছন্দের একটি ব্রণ ও ব্রণের ফেসপ্যাক।

আমাদের পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে অবশ্যই আপনার কমেন্ট করে জানিয়ে দেবেন এবং আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে আপনার প্রশ্ন জানিয়ে দেবেন আমরা খুব তাড়াতাড়ি আপনার কমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব এবং জরুরী প্রয়োজনে আমাদের মেসেঞ্জারে মেসেজ করে আপনার প্রশ্নটিই লিখে জানাতে পারেন।