মুখের কালো দাগ দূর করুন মাত্র ১০ দিনে
মুখের কালো দাগ দূর করুন মাত্র ১০ দিনে

আপনার মুখের কালো দাগ কি আপনার হতাশার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে? আপনার প্রিয় মানুষটি কি এই দাগের জন্য আপনাকে এড়িয়ে চলছে? হাজারো রকমের মেকআপ করে মুখের কালো দাগ ছোপ লুকাতে পাচ্ছেন না? চিন্তার কোন কারণ নেই আমরা আছি আপনারই জন্যে। আজ আমরা আপনার কাছে কিছু এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব যা কিনা আপনার মুখের কালো দাগ দূর করবে মাত্র ১০ দিনের ভিতরে। না কোন কেমিক্যাল কসমেটিক সার্জারি ও নয়। এই অসম্ভবকে সম্ভব করতে সাহায্য করবে কিছু ঘরোয়া উপাদান যা আপনার হাতের কাছেই আছে।

কেন হয় মুখের কালো দাগ

অনিয়মিত জীবন যাপন, অতিরিক্ত ধুলো বা রোদের স্পর্শ, অতিরিক্ত মাত্রায় জাঙ্ক ফুড, পানি কম খাওয়া ইত্যাদি। নানা কারণ আছে মুখে এই ধরনের কালো ছোপ দাগ পড়ার। ঘন ঘন ফেস ক্রিম বদলানো বা অতিরিক্ত মাত্রায় মেকআপ সামগ্রী ব্যবহার করলেও কিন্তু এ ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে তাই এখন থেকে সচেতন হোন এবং আজকের লেখাটি অনুযায়ী ঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্যবহার করা শুরু করুন দেখুন মুখের কালো দাগ দূর হবে মাত্র ১০ দিনে।

১) আপেল সিডার ভিনিগার

আপেল সিডার ভিনিগার আপনার মুখের কালো দাগ ছোপ দূর করার ক্ষেত্রে সব থেকে কার্যকারী একটা উপাদান। এতে বর্তমান এন্টি অক্সিডেন্ট ও জরুরী মিনারেলস আপনার ত্বকের যে কোন রকম কালো ছোপ দাগ কে খুব তাড়াতাড়ি দূর করে ফেলতে পারে।

ব্যবহার পদ্ধতি

দুই চামচ আপেল সিডার ভিনিগার ও ২ চামচ পানি মিশিয়ে নিন। কটন বল বা তুলো ওই মিশ্রণে ভিজিয়ে সারা মুখে মেখে ২০ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার ত্বকের পিএইচ ব্যালেন্স স্বাভাবিক থাকে এবং মৃত কোষগুলি পরিষ্কার হয়ে ত্বকের দাগ ছোপ দূর হয়ে যাবে নিমিষেই।

২) হলুদ

আমাদের ত্বকে ফ্রি রেডিক্যাল ড্যামেজ এর ফলে যে কালো দাগ বা চোখ পিগমেন্টেশন তৈরি হয় তা খুব সহজে দূর হয় হলুদের ব্যবহারের ফলে। হলুদে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া উপাদান থাকে যা এই ধরনের ক্ষতিকর হাত থেকে রক্ষা করে এছাড়া রোদের তাপে যে কালসিটে পড়ে মুখে তা এই হলুদের ব্যবহার ফলে দূর হয়ে যায়।

পদ্ধতি

দুই চামচ হারবাল হলুদের গুঁড়ো, এক চামচ লেবুর রস ও কাঁচা দুধ মিশিয়ে পেস্টের মত বানিয়ে যে সমস্ত স্থানে কালো ছোপ দাগ গুলি আছে সেখানে মেখে নিন ভালো করে। ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন এবং হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যে আপনি ভালো ফলাফল পেয়ে যাবেন।

৩) শসা

এক রাতের মধ্যে যদি দাগ থেকে মুক্তি চান তাহলে ব্যবহার করুন শসা। শসা আমাদের ত্বকে জরুরি ভিটামিন সরবরাহ করে এবং স্কিন চলছে হাল্কা করে অস্বাভাবিক কালো চোখ ও হালকা করে।

পদ্ধতি

শসার খোসা ছাড়িয়ে মিক্সিং তে বেতে জুস বের করে নিন। এবার রাতে শোবার সময় এই জুস মুখে মাখুন। সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে মুখ হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এক রাতের মধ্যেই আপনি আপনার ত্বকে পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

৪) মধু

মধু আমাদের ত্বক নমনীয় করার সাথে সাথে যে কোন রকম কালো ছাপ অবচেতন দাগ খুব তাড়াতাড়ি এবং চিরতরে দূর করে।

পদ্ধতি

প্রতিদিন রাতে শোবার আগে আপনার মুখে কালো অংশ গুলিতে বা মুখে মধু মেখে নিন। সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে পরিষ্কার ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৫) চন্দন পাউডার

চন্দন আমাদের ত্বককে ঠান্ডা করে মুখে অবাঞ্ছিত যেকোনো রকম দাগ নিমিষে দূর করতে সাহায্য করে।

পদ্ধতি

এক চামচ চন্দন পাউডার ১ চামচ গ্লিসারিন ও তিন চামচ গোলাপজল একসাথে মিশিয়ে মুখে কালো দাগ ছোপ পড়ে যাওয়া অংশে লাগিয়ে নিন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৬) আলু

আলু অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান মুখের অবাঁচিত কালো ছোপ দূর করার ক্ষেত্রে এতে বর্তমানে ন্যাচারালি ব্লিচিং উপাদান এই ধরনের দাগ হালকা করে খুব অল্প সময়ে।

পদ্ধতি ১

আলু গোল সাইজ করে কেটে নিন এবারে কাটা অংশ আপনার মুখে কালো হয়ে যাওয়া অংশে মাখন ১০ মিনিট পরে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পদ্ধতি ২

আলু খোসা ছাড়িয়ে সূক্ষ্ম গ্রেট করে নিন। এর সাথে এক চামচ মধু ও এক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মুখে মাখুন। এবার ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

মনে রাখবেন আপনার মুখের অবাঞ্ছিত ছোপ দূর করতে আপনাকে নিয়মিত মেনে প্রতিদিন এই উপাদান গুলি প্রয়োগ করতে হবে।

আপনার যদি কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানান পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন লাইক করুন ধন্যবাদ।