ঠোটে লিপিস্টিক পড়বেন অথচ চাইছেন বোল্ড কালার? কিভাবে জেনে নিন?
ঠোটে লিপিস্টিক পড়বেন অথচ চাইছেন বোল্ড কালার? কিভাবে জেনে নিন?

সাজগোজ করতে কার না ভালো লাগে না। সবচাইতে কম মানুষই পাওয়া যাবে যারা সাজগোজ করতে ভালোবাসেন না। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে যেমন নানা পোশাক এসেছে তেমন এসেছে প্রসাধনী সামগ্রী। তার মধ্যে অন্যতম হলো লিপিস্টিক। নিজেই মেকআপ এর সাথে মিলিয়ে পরিচ্ছেদের সাথে তাল মিলিয়ে রেখেই লিপস্টিক পড়া খুব সহজ দেখতে লাগল মহিলা মহলে কাছে মতে তা নয়। এর মধ্যে অনেকেই চার রঙের তার মধ্যে ঠোট পাক আলাদা মাত্রা।

সবার থেকে আলাদা করে চিনিয়ে দিক আপনাকে। আপনি যদি হালকা করে লিপিস্টিক পড়তে পড়তে ক্লান্ত হয়ে একঘেয়ে হয়ে যান তবে আজকে আলোচনা আপনারই জন্যে। কিভাবে লিপিস্টিক পড়তে আপনার ঠোট টি হয়ে উঠবে আর ও মহনাই এবং আকর্ষণীয় সেই সম্পর্কে আজ আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

জেনে নিন বোল্ড লিবিস্টিক পড়ার সঠিক নিয়ম

১) প্রথমে মুখ পরিষ্কার করুন

আপনার মুখ পুরোপুরি ফেসওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। এখন শুধু মুখ পরিষ্কার করলেই তো হবে না। আমাদের ঠোঁটে যে মৃত কোষ গুলো আছে সেগুলো কে ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে লিপিস্টিক কখনোই সমানভাবে ঠোঁটে বসবে না। তার জন্য আমরা আপনাদের জন্য ছোট্ট একটি সহজ সাধারণ উপায়। একটা ছোট বালতিতে 1 চা চামচ চিনি নিন। আর এর সাথে একটুকরো লেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে দুই মিনিটের মতো ঠোটে ঘষলে আপনার ঠোঁটের যাবতীয় ডেড সেল পরিষ্কার হয়ে ঠোঁট নরম এবং মোলায়েম হবে।

২) কালো ঠোঁট কিভাবে সামলাবেন

আমাদের মধ্যে অনেকেই সমস্যা থাকে কালো ঠোঁট নিয়ে এখন এমন কালো ঠোঁট হলে লিপিস্টিক কালার ঠোঁটে বসতে চায় না। সেক্ষেত্রেও একটা সহজ উপায় আছে পুরো ঠোঁট যখন পরিষ্কার করা হয় যাবে তখন যে কোন লিপবাম লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এরপর পুরো ঠোটে আপনার পছন্দমত কনসিলার বা আপনি যে মেকআপ আপনার মুখের জন্য ব্যবহার করেন সেটা আপনার পুরো ঠোটে লাগিয়ে নিন।

৩) সীমারেখার দরকার আছে

এরপর আপনি যেকোনো দাগ কালারের লিপলাইনার নিন তার সে ডিপ মেরুন বা ডিপ লাল।যে কালারটা আপনার স্কিন টোনের সাথে ম্যাচ করে সেটি বুঝিয়ে বেছে নিন আপনার পছন্দের লিপলাইনার। এবার আপনার ঠোঁটের বর্ডার লাইন বরাবর একে ফেলুন। যদি দুটি মোটা করে আঁকতে চান তবে বর্ডার লাইন একটু বাইরের দিকে এগিয়ে আকুন। এতে আপনার ঠোঁট পাতলা দেখাবে। আপনার পছন্দ মত ঠোঁট আঁকা হয়ে গেলে ওই লিপলাইনার দিয়ে পুরো ঠোট হালকা করে বুলিয়ে নিন।

৪) আপনার লিপস্টিক বেছে নিন

সবার শেষে আপনি যে লিপিস্টিক টি পছন্দ করেন সে লিবিসটিক টি আপনি বেছে নিন। প্রথমে উপরের ঠোঁট এবং পরে নিচের ঠোঁটে সঠিক পরিমাণে লাগিয়ে নিন। অনেকে চা ঠোঁটে একটু ম্যাট ফিনিস আসুক। পুরো লিপিস্টিক পড়ার পর যদি আপনিও একটু বেশি ম্যাট ফিনিস চান তবে একটু টিস্যু নিয়ে দু’টো ঠোঁটের মাঝে হালকা করে চেপে নিলেই পেয়ে যাবেন আপনার বোল্ড গর্জিয়াস ম্যাট কালার লিপস্টিক।

আর আপনি যদি পছন্দ করেন গ্লাসলিপ ফিনিশিং তাহলে পুরো লিপস্টিক পড়ার পরে ঠোঁটে কোন গ্লাস লাগিয়ে নিন তবেই পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দমত ভোল্ড গ্লসি কালার্স লিপস।

সবশেষে ঠোঁটের চারপাশে হালকা করে কনসিলার লাগিয়ে নিন ভুলবেন না এটি আপনার ঠোঁটের কালারে আরও উজ্জ্বল করে তুলবে।