বিউটি টিপস
সৌন্দর্য এবং হেলথ টিপস

চুল ওঠার সমস্যার পিছনে থাকতে পারে শারীরিক অসুস্থতা

0 13

চুল ওঠার সমস্যার পিছনে মাথায় চিরুনি চালালেই যদি গোছা গোছা চুল উঠে যায়, মন খারাপ হওয়া স্বাভাবিক! তেল, শ্যাম্পু, কন্ডিশনিং, হেয়ার ট্রিটমেন্ট সত্ত্বেও যদি পরিস্থিতির কোনও উন্নতি না হয়, তা হলে কিন্তু মন খারাপ করে বসে থাকলেই হবে না, সাবধানও হতে হবে। অনেক সময় চুল ওঠার পিছনে লুকিয়ে থাকে জটিল কোনও শারীরিক অসুস্থতা। সে ক্ষেত্রে কিন্তু বাইরে থেকে যত্ন করলেই হবে না, চিকিৎসকের পরামর্শও নিতে হবে। দেখে নিন চুল উঠে যাওয়ার পিছনে কোন কোন শারীরিক সমস্যা লুকিয়ে থাকতে পারে।

চুল পাতলা হয়ে যাওয়া
পুষ্টির অভাব, হরমোনের সমস্যা। অতিরিক্ত হেয়ার ট্রিটমেন্টের মতো একাধিক কারণে চুল পাতলা হয়ে যেতে পারে। অনেক সময় মেয়েদের ক্রনিক টেলোজেন এফ্লুভিয়াম নামে একটি সমস্যা হয়, যাতে গোছা গোছা চুল উঠে যায়। এক নাগাড়ে ছ’ মাসের বেশি সময় ধরে মুঠো মুঠো চুল উঠতে শুরু করলে দেরি না করে ডাক্তার দেখান চুল ওঠার সমস্যার পিছনে

মাথার তালুতে চুলকানি
খুসকি বা অন্য সংক্রমণের কারণে মাথা চুলকোতে পারে। অতিরিক্ত মাথা চুলকোনো মানেই কিন্তু মাথার তালুতে সেবামের ঘাটতি হচ্ছে। স্ট্রেস, ক্লান্তি বা অ্যালার্জি জনিত কারণে মাথা চুলকোতে পারে। তাই অতিরিক্ত মাথা চুলকোলে বা মাথার তালু থেকে আঁশ আঁশ মতো উঠলে নিছক খুসকির ট্রিটমেন্ট করে সেরে দেবেন না, ত্বক বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হোন।

চুলের ডগা ফাটা
চুল অতিরিক্ত শুকনো হয়ে গেলে, কেরাটিনের অভাব হলে চুলের ডগা দু’ আধখানা হয়ে ফেটে যায়। আবার বালিশে চুল অতিরিক্ত ঘষা খেলে বা ড্রায়ারের অপরিমিত ব্যবহারেও চুল শুকনো হয়ে ফেটে যায়। চুল কোমল রাখতে নিয়মিত তেল মাখুন, কেমিক্যাল ট্রিটমেন্ট করাবেন না। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

রুক্ষ চুল
শরীরে হরমোনের ভারসাম্যে তারতম্য দেখা দিলে চুল ধীরে ধীরে রুক্ষ হতে শুরু করে। আবার ভুল প্রডাক্ট ব্যবহার, অতিরিক্ত ক্ষার যুক্ত জলে স্নানও চুল রুক্ষ করে দেয়। নিয়মিত তেলের ব্যবহার, কোমল জলে স্নান করেও যদি চুলের রুক্ষতা না কমে, চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে হরমোন পরীক্ষা করুন।

চুল পাকা
অকালে চুল পেকে যাচ্ছে? এর অর্থ আপনার মেলানিনের পরিমাণে ঘাটতি হচ্ছে। বয়স 35 বছরের নিচে অথচ চুল পাকতে শুরু করেছে, এমন যদি হয়, তা হলে আপনার হয়তো ভিটামিন বি-এর অভাব হচ্ছে। আবার থাইরয়েডের পরিমাণ কমে গেলেও চুল পাকতে শুরু করে। সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতেই হবে।

বিবর্ণ চুল
প্রাণহীন, বিবর্ণ চুলের অর্থ আপনার শরীর তার প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাচ্ছে না। অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড খেলে, পর্যাপ্ত জলপান না করলে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। শাকসবজি, ফল আর প্রোটিনযুক্ত সুষম খাবার আর পরিমাণমতো জল খান। পরিশোধিত চিনি আর ময়দাজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। অ্যান্টি-ড্যানড্রাফ বা ভল্যুমাইজ়িং শ্যাম্পু বেশি ব্যবহার করবেন না।

মন্তব্য
Loading...