কালো ত্বক থেকে মুক্তির দিতে আপনার জন্য বিশেষ কিছু ফর্মুলা

উজ্জ্বল ত্বকের মালিক কে না হতে চায়। বুড়ি বুড়ি কসমেটিক ব্যবহার করে হতে পারছেন না। আজকের লেখাটা তাহলে আপনারই জন্য মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

কালো ত্বক থেকে মুক্তির দিতে আপনার জন্য বিশেষ কিছু ফর্মুলা
কালো ত্বক থেকে মুক্তির দিতে আপনার জন্য বিশেষ কিছু ফর্মুলা

স্কিন ফর্সা দেখাবার জন্য জাস্ট বেরোবার আগে একটা ফেস ওয়াস ক্রিম? এতে সাময়িক লাভ হলেও আদৌ কোন কাজ হয় না। বরং ত্বককে আরও নষ্ট করে দেয় অতিরিক্ত। তাহলে কি করবেন? কিছুদিন জাস্ট ব্যবহার করুন কয়েকটা খুব সহজ ভালো উপাদান। ব্যাস তারপরে উজ্জ্বল ত্বক কাকে বলে। তখন আর ভুরি ভুরি কসমেটিক ব্যবহার করতে হবে না আপনাকে। তাই আজকের লেখা মন দিয়ে পড়ুন যদি সত্যিই সুন্দর ব্রাইট স্কিন পেতে চান।

মধু

মধু প্রাকৃতির একটা উপহার সুন্দর ত্বকের জন্য। এটি ত্বককে শুধু উজ্জ্বল করে না তোকে নানা রকম দাগ নানা সমস্যা ক্ষেত্রেও বেশ উপকারী। জাস্ট একটু মধু নিয়ে হালকা মেসেজ করে লাগিয়ে রাখুন 10 থেকে 15 মিনিটের মত আপনার ত্বকে। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। টানা একমাস করুন তারপর তফাৎ আপনি দেখুন নিজের চোখে। একটি স্কিনের ডেট ফেল সরিয়ে একটা ফ্রেশ ও উজ্জ্বল স্কিন দেবে। এছাড়া মধু, লেবুর রস, গুঁড়ো দুধ ও আমন্ড অয়েলের পেস্ট বানানো। এটি লাগিয়ে রাখুন 20 মিনিটের মত। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।দারুন কাজে আসবে।

টক দই

টক দই এ থাকে ল্যাকটিক এসিড। যা প্রাকৃতিক ব্লিচ। রোজ একটু টকদই হালকা হাতে কয়েক মিনিট ম্যাসেজ করুন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মেসেজ করা পরে তক্তার দেখতে পারবেন কেমন সুন্দর লাগছে। এটা রুজ করুন। এক মাস পর তফাতটা নিজেই বুঝতে পারবেন। এছাড়াও টক দইয়ের সঙ্গে একটু মধু মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন 15 থেকে 20 মিনিট। সপ্তাহে তিন দিন করুন। তারপর দেখবেন স্কিন টনের পরিবর্তন।

টমেটো

স্কিন টোন লাইট করতে টমেটো বেশ সাহায্য করে। এর জন্য জাস্ট কয়েক টুকরো টমেটো কেটে স্কিনের উপর ঘষুন। বা টমেটোর রস করেওস কিনে লাগাতে পারেন। 15 মিনিটের মতো রেখে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের রং হালকা হবে হাতে পায়ে লাগাতে পারেন এই পেস্ট ফর্সা হবে আপনার ত্বক।

হলুদ

রূপচর্চায় হলুদের গুন আমরা অনেকেই জানি। এর জন্য এক চামচ হলুদ 1 চামচ বেসন ও এক টুকরো কাঁচা দুধ ভালো করে মিশন। এবার এই পেজটি লাগিয়ে রাখুন 15 থেকে 20 মিনিট। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে 2 বার করুন ভালো ফল পাওয়ার জন্য। স্কিন কে ভেতর থেকে উজ্জ্বল করে তুলবে এই প্যাক।

লেবু

স্কিন কে ব্রাইট করার জন্য লেবুর জুড়ি নেই। এটি খুব ভালো ব্লিচ এর মত কাজ করে। এটি স্কিনের যে কোন দাগ দূর করে স্কিন ব্রাইট করে তোলে। এর জন্য 1 চা চামচ লেবুর রস ও 1 চা চামচ চিনি মেশান। এটি হালকা ম্যাসাজ করে লাগিয়ে রাখুন 10 মিনিটের মত। এর চেয়ে বেশি লাগিয়ে রাখার দরকার নেই। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কিন্তু তোকে কোন জায়গায় কাটা থাকলে এটা লাগাবেন না।

ময়দা

ময়দা শুধু না খেয়ে কাজে লাগান আপনার রূপচর্চায়। ময়দা ও গোলাপজল ভালো করে মেশান। এই পেস্ট মুখে হাতে গলায় লাগান। হালকা শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়াও ময়দা ও দুধের সর মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন দেখবেন ত্বক ধীরে ধীরে উজ্জ্বল হয়ে যাচ্ছে।

কমলালেবু

ত্বক ফর্সা করতে ভিটামিন সি বেশ কার্যকরী আর কমলা লেবুতে প্রচুর আছে ভিটামিন সি। তাই সপ্তাহে 3-4 দিন কমলা লেবুর রস খেয়ে দেখবেন নিজের কে কেমন উজ্জ্বল লাগছে। এছাড়াও কমলালেবুর খোসা গুঁড়ো করে হাতে একটু দই মিশিয়ে পেস্ট বানানো। তারপর লাগিয়ে রাখুন 20 মিনিট। ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়াও কমলা লেবুর রসের সাথে একটু হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে কিভাবে লাগাতে পারেন দারুন কাজ হবে।

এই প্রতিটা উপাদানই কিন্তু বেশ কার্যকরী জাস্ট ব্যবহার করুন এক থেকে দু মাস তারপর সব প্রশংসাই থাকবেন আপনার ঝুলিতে।

আপনার মতামত এবং প্রশ্ন আমাদেরকে কমেন্ট করে জানান।